জানুন payoneer একাউন্ট খোলার নিয়ম-2021

payoneer একাউন্ট খোলার নিয়ম:-আমাদের দেশে বহু তুরুন -তরুণী ফ্রীল্যানসিং কর্মকে বেঁছে নিচ্ছেন।সাধারণত ফ্রীল্যানসিং কাজে দেশ-বিদেশের বিভিন্ন ক্লায়েন্টের সঙ্গে নিযুক্ত হতেহয়।ফলে,সেই সব ক্লিয়েন্টে দের সঙ্গে টাকা লেনদেন করার জন্য একটি ইন্টারন্যাশনাল পেমেন্ট গেটওয়ের দরকার পরে।তাই,আপনি যদি এই ধরণের কর্মের সঙ্গে যুক্ত বা বিদেশে থেকে টাকা সেন্ড বা রিসিভ করতে চান,তাহলে এই পেমেন্ট গেটওয়ের দরকার পরবে।

payoneer একাউন্ট খোলার নিয়ম

আপনারা হয়তো পেপাল ও পেওনিয়ার এর নাম শুনছেন এগুলি হচ্ছে বিশ্বের সবথেকে বেশি বেবহৃত পেমেন্ট মেথড।আমাদের দেশে যেমন paytm বা PhonePe দেশীয় ডিজিটাল পেমেন্ট app হিসাবে ব্যবহার করি সেই ভাবে  পেওনিয়ার  থেকে আপনি ডলার বা ইউরো ইন্ডিয়ান নিজের ব্যাংকে নিতে পারবেন।  

ইন্টারন্যাশনাল টাকা লেনদেন করার জন্য আমাদের দেশে অনেক কয়েকটি পেমেন্ট গেটওয় দেখা যায়।তারমধ্যে পেপাল,পেওনিয়ার,স্ক্রিল এগুলিআমাদের দেশে খুবই পরিচিতি পেয়েছে।ভারত ও বাংলাদেশ দুই দেশেই payoneer এর সার্ভিস মজুদ রয়েছে।

আমরা এই ব্লগে আগে পেপালস্ক্রিল সম্পর্কে আলোচোনা করেছি,তাই আজকে Payoneer bangla তে একাউন্ট খোলার নিয়ম টি সহজ পদ্ধতিতে জেনে নেবো।

Payoneer এর মধ্যে কেনো একাউন্ট খুলবেন ?

কিছু কিছু ফ্রিল্যান্সিং জব ওয়েবসাইট ও কোম্পানি আছে যারা তাদের ক্লায়েন্টে ও employee দের only  payoneer দ্বারা পেমেন্ট করে।

তাই এই প্লাটফর্মে আপনার একাউন্ট থাকা বাঞ্ছনীয়।কারণ ফ্রিল্যান্সিং ফিল্ডে কাজ করতে হলে এই পেমেন্ট গেটওয়তে একটি একাউন্ট এর প্রয়োজন পড়বে।

তাই আজ আমরা দেখেনেব কিভাবে খুব সহজে আপনি payoneer একাউন্ট খুলবেন।

জেনেনিন –

বিস্তারিত জেনেনিন payoneer একাউন্ট খোলার নিয়ম ?

প্রথমেই বলে রাখি payoneer এর মধ্যে একাউন্ট খুলতে হলে আপনার কিছু ডকুমেন্ট থাকা বাধতামুলুক।

এর মধ্যে মধ্যে আপনি দুই ভাবে অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন এক হচ্ছে ইন্ডিভিজুয়াল ও কোম্পানি একাউন্ট।

ইন্ডিভিজুয়াল অ্যাকাউন্ট খুলতে হলে,ভারতীয় নাগরিক দেড় PAN কার্ড ও একটি bank একাউন্ট থাকা বাধ্যতামূলক।

আর আপনি কোম্পানি একাউন্ট খুলতে চাইলে আপনার ট্যাক্সের ইনফরমেশন অথবা ট্রেড লাইসেন্স ইত্যাদি দরকার পড়বে।

অবশ্য এখানে আপনার আইডেন্টিফাই করার জন্য আধার কার্ড বা ভোটার কার্ডের ও দরকার হতে পারে।

তাই payoneer এ খাতা খুলার আগে এই ডকুমেন্ট গুলি রেডি করুন তাহলে প্রেসেস টা অনেক এগিয়ে যাবে। 

যাইহোক,আমি ধরে নিলাম সব ডকুমেন্ট রেডি,

তাই এবার payoneer এর অফসিয়াল ওয়েবসাইট এ ভিসিট করুন।গুগলের মধ্যে payoneer লিখে সার্চ করে প্রথম অপসন টি ক্লিক করে ওপেন করুন। 

অথবা এখানে ক্লিক করুন -(www.payoneer.com)

আপনারা যদি মোবাইল থেকে পেওনিয়ার সাইট খুলতে চান তাহলে আমি রেকমেন্ড করবো গুগল ক্রোম ব্রাউজার ব্যবহার করুন। 

পেওনিয়ার সাইট ওপেন হওয়ার পর ডেস্কটপ মোড এ গিয়ে ওয়েবসাইট টি ফুল ভার্সনে খুলুন।এর পরে নিচে দেখানো স্টেপ গুলি ফলো করুন। 

step 1-

payoneer অফসিএল ওয়েবসাইট ওপেন হওয়ার পর,ডানদিকে উপরে নিউ ইউসার রেজিস্টার অপসন দেখতে পাবেন,সেখানে নুতুন ইউসার রেজিস্টার করার জন্য ক্লিক করুন।

(মনে রাখবেন –আমি ইন্ডিয়া থেকে এই একাউন্ট ওপেন প্রসেস দেখাচ্ছি ,কিন্তু বাংলাদেশ বা অন্য দেশের  ক্ষেত্তে প্রসেস ভিন্ন হতে পারে।তবে ,আশা করি ইন্ডিয়া থেকে payoneerএ খাতা খুলার প্রক্রিয়া টি দেখেনিলে ,আপনি এই একাউন্ট ওপেন করার প্রসেস টি বুঝতে পেরে যাবেন।)

payoneer একাউন্ট

রেজিস্টার এ ক্লিক করার পর,payoneer আপনার কাছে বেসিক কিছু ডেটলেস জেনে নেবে। যেমন -আপনি ফ্রীলান্সার না অনলাইন সেলার,এছাড়া আপনি টাকা লেনদেন দেশে না দেশের বাইরে করতে চান এবং আনুমানিক কত ডলার লেনদেন করবেন। এগুলি সাবমিট করে next করুন। 

Payoneer account open

 নেক্সট করলে আপনি রেজিস্টার করার বাটন দেখতে পাবেন সেখানে ক্লিক করুন,সে আপনাকে একাউন্ট রেজিস্টার পেজে ট্রানফার করে দেবে। 

Step 2(Getting Started)

payoneer এর মধ্যে নুতুন খাতা খুলতে আপনাকে ৪ টে ধাপ পার করতে হবে।আমি এই পোস্টে ছবি সহ একে একে সেই ধাপ গুলি বুঝিয়ে দিয়েছি। 

প্রথম ধাপে ”select your type of business”এখানে এই একাউন্টটি নিজের না কোম্পানির জন্য তৈরী করছেন সেটা বেঁছে নিন।

আমি ধরেনিলম নিজের জন্য একাউন্ট টি ওপেন করতে চান,তাহলে individual select করুন।

next -নিচের box টি পূরণ করুন।

  • প্রথমে box এর মধ্যে নিজের ফাস্ট নাম দিন (উদহারণসরূপ – shahrukh khan এর fast name shahrukh)।
  • এর পর দ্বিতীয় box এ লাস্ট নাম দিন (উদহারণসরূপ – shahrukh khan এর last name khan)।
  • তৃতীয় box এ নিজের পার্মানেট ইমেইল এড্রেস বা gamil এড্রেস দিন। 
  • চতুর্থ box এর মধ্যে আগে দেওয়া ইমেইল এড্রেস বা gamil এড্রেস টি পুনুরাই টাইপ করুন। 
  • লাস্ট box এ নিজের date of birth বা জন্ম তারিক দিন। 

  সবকিছু তথ্য ঠিকঠাক দেওয়ার পর next করুন।(মনে রাখবেন ,এখানে কিছু ভুল তথ্য দিলে আপনার একাউন্ট ভেরিফাই হবে না।তাই নিজের পার্সোনাল নাম,জন্ম তারিক সঠিক লিখুন)

 
Payoneer bangla

জানুন – 

Step –3 (Contact Details)

Next করার পর দ্বিতীয় ধাপে নিজের Contact Details যথা আপনার ঠিকনা টি পূরণ করুন। 

  • প্রথমে box এর মধ্যে আপনি কোন দেশের নাগরিক সেটি  সিলেক্ট করুন।(আমি indain তাই india সিলেক্ট করেছি।আপনারা নিজের দেশ সিলেক্ট করুন ।)
  • দ্বিতীয় box ও তৃতীয় বাক্স এ নিজের এড্রেস দিন (যেটি আপনার ভোটার কার্ড বা আধার কার্ডে আছে)
  • চতুর্থ বাক্স এ নিজের শহর/গ্রাম এর নাম দিন। 
  • পঞ্চম বাক্স এ পোস্টঅফিস এর পিন নম্বর দিন। 
  • অন্তিম বাক্স এর মধ্যে নিজের পার্মানেন্ট মোবাইল নম্বর দিন।

মোবাইল নম্বর টাইপ করার পর,সেই নম্বরে একটি ভেরিফিকেশন code যাবে সেটি নিচের box এ টাইপ করে মোবাইল নম্বর ভেরিফাই করুন।

Step –4 (Security Details)

তৃতীয় ধাপে,এবার একাউন্ট লগইন তথ্য এর বাক্সটি পূরণ করতে হবে।

এখানে ইউসার নাম,পাসওয়ার্ড,সিকিউরটি question ইত্যাদি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য গুলি পূরণ করুন।(আমার এডভাইস ,মনে করে এই তথ্য গুলি কোথও লিখে রাখুন) 

  • প্রথম বাক্স এ ইউসার নাম অথবা ইমেইল এড্রেস দিন।
  • দ্বিতীয় বক্সে payoneer একাউন্ট পাসওয়ার্ড তৈরী করুন। 
  • তৃতীয় বক্সে যে পাওয়ার্ড টি তৈরী করেছেন সেটি পুনরাই এখানে দিন। 
  •  চতুর্থ বক্সে যেকোনো একটি সিকিউরটি question বেঁছে নিন (উধারণসরূপ -আমি বেঁছে নিলাম what twon was your father born in).
  • Next এবার উপরের সিকিউরটি question এর উত্তর টি লিখুন (যেটি শুধু আপনি জানেন। যেমন আমার উত্তর calcutta)
  • next নিজের দেশ সিলেক্ট করুন।(আমার ক্ষেত্রে india)
  • যেহেতু আমি indian তাই আমাকে PAN কার্ড এর তথ্য /নম্বর দিতে হবে।তাই,আপনিও যদি ভারতীয় নাগরিক হন তাহলে নিজের প্যান কার্ডের নম্বর টি সাবমিট করুন। আর অন্য কোনো দেশের নাগরিক হলে নিজের দেশের VAT/TAX এর যে আইডি আছে সেটি সাবমিট করুন। 
  • শেষে সমস্ত তথ্য পূরণ করেনিলে ক্যাপচা পূরণ করে next করুন। 

Step –5 (Account Details)

আমরা শেষ ধাপে চলে এসেছি,যেখানে একাউন্ট এর Details টি পূরণ করলেই আপনার payoneer এর মধ্যে খাতা ওপেন হয়ে যাবে। 

  • প্রথমত আপনার ব্যাঙ্ক একাউন্ট পার্সোনাল না কোম্পনি সেটি সিলেক্ট করুন।
  • NEXT বক্সে দেখবেন নিজের দেশ ও curancy সিলেক্ট হয়ে আছে।
  • এবার পরবর্তী বক্সে যেখানে Bank Name লেখা আছে -আপনার যে ব্যাংকে একাউন্ট আছে সেটি সিলেক্ট করুন। 
  • এবার সেই ব্যাঙ্ক একাউন্ট টি কার নাম আছে সেটি লিখুন। 
  • যেখানে Account Number লেখা আছে সেখানে নিজের ব্যাঙ্ক এর একাউন্ট নম্বর দিন। 
  • তারপর ব্যাঙ্ক এর IFCE code লিখুন।( পাসবুক অথবা চেক বুক এ পেয়ে যাবেন)
  • পরবর্তীতে আর একবার নিজের PAN নম্বর দিন। 
  • শেষে নিজের একাউন্ট টাইপ সিলেক্ট করুন সেভিং না কারেন্ট। 

এবার আপনি payoneer এর terms and conditions গুলি ভালো করে পড়ে নিয়ে সিলেক্ট করে সাবমিট করে দিন।

তাহলেই আপনার কাজ শেষ।submit করার পর আপনি congratulations ম্যাসেজ দেখতে পাবেন ,এবং একাউন্ট সাবমিট সফল হয়েছে।

এবার,আপনার একাউন্ট payoneer কাছে রিভিউ এর জন্য চলেযাবে।তবে চিন্তা নেই,দুই-একদিনের মধ্যেই  payoneer টিম আপনার একাউন্ট রিভিউ করার পর একটি মেইল পাঠাবে। একাউন্ট approved হওয়ার পর আপনি টাকা লেনদেন করতে পারবেন।

আরো পড়ুন – 

আমাদের শেষ কথা :-

ফ্রেন্ডস ,আশাকরি উপরের পোস্ট পরে payoneer একাউন্ট খোলার নিয়ম বুঝতে পেরেছেন। আপনি যদি ভারতীয় নাগরিক হন তাহলে আপনাকে same প্রসেস ফলো করতে হবে,আর ভবিষৎতে কোনো চেঞ্জ এলে আপনি এই পোস্টি আপডেট করে দেব। 

আর যে বন্ধুরা এই পোস্টি বাংলাদেশ বা অন্যান্য দেশ থেকে পড়ছেন,তাদের পেওনিয়ার একাউন্ট খুলার প্রসেস একটু আলাদা হতে পারে।তবে উপরে দেখানো পদ্ধতি ফলো করলে আশাকরি আপনার অসুবিধে হবে না।

তাই,আপনার কোনো প্রশ্ন বা সমস্যা থাকলে কমেন্ট করতে ভুলবেন না।ধন্যবাদ 

Share via
Copy link