বিকাশ থেকে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করার নিয়ম।

বিকাশ থেকে বিদ্যুৎ বিল দেওয়ার পদ্ধতি:- বন্ধুগণ,অনেক বাংলাদেশি ভাই-বোনেরা অনলাইনে পেমেন্ট গেটওয়ে রূপে বিকাশকে ব্যবহার করেন।তাই,কিভাবে বিকাশে একাউন্ট ওপেন করবেন তা নিয়ে আগেই পোস্ট লিখেছি।কিন্তু অনেক ইউসার জানতে চাইছেন কিভাবে এই app দ্বারা বিদ্যুৎ বিল দেওয়া সম্ভব।তাই আপনি যদি বিকাশ app এর সাহায্যে বিদ্যুৎ বিল দিতে চান তাহলে বিস্তারিত এই আর্টিকেলে জেনেনিন।

বিকাশ থেকে বিদ্যুৎ বিল

বতর্মানে ইন্টারনেটের দৈলতে বিভিন্ন পেমেন্ট অনলাইন ব্যাঙ্কিং app দ্বারা সম্ভব।যেমন মোবাইল রিচার্জ,DTH রিচার্জ,ইলেট্রিক বিল,গ্যাস বিল,পানি বিল আরও বিভিন্ন বিলের পেমেন্ট ব্যাঙ্কিং app দ্বারা আমরা করেথাকি।

আপনারা নিশ্চয়ই জানেন বিকাশ বাংলাদেশের খুব পুপলার অনলাইন ব্যাঙ্কিং app।তাই,এই ব্যাঙ্কিং অ্যাপের ইউসার সংখ্যা বিশাল।

এই বিশাল সংখ্যক গ্রাহক থাকার ফলে নানান মানুষ এখন অনলাইনে বিকাশের মাধ্যমে বিভিন্ন বিল পরিশোধ করছেন।

বন্ধুগণ আপনাদের অনেকের বিকাশের মধ্যে অ্যাকাউন্ট ওপেন রয়েছে,

কিন্তু সুযোগ থাকা সত্ত্বেও এই অ্যাপের সাহায্যে বিদ্যুৎ বিল দিতে পারছেন না।তারফলে আপনাকে ব্যাংকে দীর্ঘ লাইন দিয়ে সেই বিল পরিশোধ করতে হয়।

ফ্রেন্ডস চিন্তানেই,এই আর্টিকেল পড়ার পর খুব সহজে বাড়িতে বসে এই বিদ্যুৎ বিল নিজে নিজেই দিতে পারবেন।তাহলে চলুন দেরি না করে সেই প্রসেসে টি বিস্তারিত জেনেনি।

আরো পড়ুন – 

জানুন বিকাশ থেকে বিদ্যুৎ বিল দেওয়ার পদ্ধতি?

বন্ধুগণ,বিকাশ app এর সাহায্যে পল্লী বা অন্যান্য বিল বিদ্যুৎ দেওয়া খুবি সহজ।তাছাড়া এখানে আপনার কোনো এক্সটার চার্জ লাগেনা।তাই,বাড়িতে বসে কিভাবে নিজেই আপনি এই বিল পে করবেন তার নিয়মবা প্রসেস টি দেখে নেবো।

আমরা নিচে স্টেপ ব্যায় স্টেপ বিদ্যুৎ বিল দেওয়ার প্রসেস টি স্ক্রিন শর্ট দ্বারা বুঝে নেবো।বন্ধুরা,আশাকরি আপনাদের সবার বিকাশ একাউন্ট রয়েছে যদি না থাকে তহলে সহজে কিভাবে খুলবেন সেটা জেনেনিন।(বিকাশ একাউন্ট )

যাইহোক,সর্বপ্রথম আপনারা নিজের স্মার্টফোন থেকে বিকাশ app ওপেন করুন।

স্টেপ ১- এরপর বিকাশ app এর মধ্যে প্রবেশ করুন এবং নিজের উক্ত পিন নম্বর দিয়ে একাউন্ট লগইন করুন।

বিকাশ বিদ্যুৎ বিল খরচ

নেক্সট আপনি বিকাশ app এর হোমস্ক্রিন এরমধ্যে চলে আসবেন।লগইন করার পর নিচে ছবিতে দেখানো ওইরকম বিকাশের হোমস্ক্রিন দেখতে পাবেন।

বিকাশ থেকে বিদ্যুৎ বিল দেওয়ার পদ্ধতি

স্টেপ ২- ফ্রেন্ডস বিকাশে লগইন করার পর আপনারা হোমস্ক্র্রেনে বিভিন্ন আইকন দেখতে পাবেন।ওই গুলি হচ্ছে বিকাশের বিভিন্ন সার্ভিস,যার সাহায্যে অনলাইনে বিভিন্ন পেইমেন্ট,রিচার্জ বা টাকা লেনদেন করতে পারবেন।

তাইএবার,আপনি যদি বিদ্যুৎ বিল দেওয়ার সার্ভিসটি ব্যবহার করতে চান তাহলে আপনাকে পেবিল অপশন টি ওপেন করতে হবে।পে বিল আইকন এ ক্লিক করুন।(নিচে ছবিতে দেখুন)

বিকাশ বিদ্যুৎ বিল দেওয়ার পদ্ধতি

স্টেপ ৩- এবার নেক্সট পেজে আপনি কোন ধরণের বিল পে করতে চাইছেন সেটি জানতে চাইবে।যেমন – ইলেট্রিক বিল,পানি বিল,গ্যাস বিল ইত্যাদি।

এখানে আপনি বিদ্যুৎ বিল অপসন টি সিলেক্ট করুন।

তারপর নিচে বিভিন্ন বিদ্যুৎ কোম্পানির নাম দেখতে পাবেন,সেখানে আপনি যে কোম্পানি বিদ্যুৎ ব্যবহার করেন সেটি সিলেক্ট করুন।

আপনারা যারা পল্লী বিদ্যুৎ ব্যবহার করেন তারা পল্লী বিদ্যুৎ(postpaid) অপসন সিলেক্ট করুন।

এখানে আপনি পল্লী বিদ্যুৎ(prepaid) ও (postpaid) দুটি অপসন পাবেন।যারা কার্ড দিয়ে রিচার্জ করে তাদের জন্য প্রিপেইড প্ল্যান।

আর যারা মাসের শেষে বিল দেই (মানে আগে বিদ্যুৎ ব্যবহার করে পরে বিল দেওয়া ) তারা postpaid অপসন সিলেক্ট করুন।

আমি মাসের শেষে বিল দি তাই postpaid অপসন সিলেক্ট করেছি।আপনারদের একই হলে আমাকে ফলো করুন।

বিদ্যুৎ বিল দেখার নিয়ম

স্টেপ ৪-

সেকশন ১- পোস্টপেইড অপসন সিলেক্ট করার পর একটি পেজ ওপেন হবে যেখানে কারেন্ট মাস,sms একাউন্ট নম্বর দিয়ে বিল পে করতে হয়।(এখানে বিকাশ যে একাউন্টের বিদ্যুৎ বিল পে করতে চান তার sms একাউন্ট নম্বর চাইবে।)

সেটি কিভাবে পাবেন জেনেনিন।দেখুন,sms একাউন্ট নম্বর এর পশে স্যাম্পল বলে লেখা আছে,ওখানে ক্লিক করুন।

পল্লী বিদ্যুৎ বিল চেক করার নিয়ম

নেক্সট আপনি একটি বিলের কপি দেখতে পাবেন এবং সেখানে কোথাই sms একাউন্ট নম্বর লেখা আছে সেটা মার্ক করে দেখানো আছে।

আপনারা সেটি ফলো করুন এবং নিজেদের বিলের মধ্যে দেখেনিয়ে যেখানে(এস এম এস একাউন্ট নম্বর দিন) লেখা আছে সেই বক্সে টাইপ করুন।

সেকশন ২- এবার পরবর্তী ধাপে,যেখানে মাস ও শাল লেখা আছে ওখানে ক্লিককরে আপনি কোন মাসের বিল পে করতে চান সেটি বেঁছে নিন।

সেকশন ৩- ফ্রেন্ডস, এবার নিচে দেখুন আপনি ভবিৎষতে পুনরোই বিল পেইমেন্ট করার জন্য একটি বাক্স পাবেন সেটি টিক দিয়ে রাখতে পারেন।ফলে বারেবারে আপনাকে এস এম এস একাউন্ট নম্বর লিখতে হবে না।

ফ্রেন্ডস,আপনাদের যদি কোনোরকম বুঝতে অসুবিধে হলে চিন্তানেই।

বিকাশ আপনাকে বিল পেইমেন্ট করতে সবদিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে।আপনি এগুলি ভিডিও দেখে খুব সহজে বুঝে নিতে পারেন।

দেখুন নিচে (ভিডিও দেখতে চাপুন) লেখা আছে ওখানে ভিডিও দেখে আরও ডিটেলস বুঝেনিতে পারবেন।

যাইহোক,শেষে সবকিছু একবার রিভিউ করেনিয়ে তারপর নিচে(পে বিল করতে এগিয়ে যান/proceed to pay) ক্লিক করুন।

স্টেপ ৫- পরবর্তী পেজ একটু লোড হওয়ার পর,আপনার এস এম এস একাউন্ট নম্বর সঠিক হলে নিজের বিলের ইনফরমেশন গুলি দেখতে পাবেন।

এখানে আপনার বিদ্যুৎ বিল ও বর্তমান বিকাশ ব্যালান্স সবকিছু দেখতে পাবেন।(যেমন ছবিতে ৯১৩ টাকা বিল দেখতে পাচ্ছেন)

শেষেবারের মত একবার রিভিউ করে নেওয়ার পর নিচে(পরের ধাপে যেতে ট্যাপ করুন) লেখা আছে ওখানে ক্লিক করুন।

স্টেপ ৬- পরবর্তি পেজে চলেএলে এবার আপনাকে শুধু বিল পেইমেন্ট করে দিতে হবে।এখানে আপনি নিজের বিকাশ পিন নম্বর টাইপ করুন তারপর পশে অ্যারো তে ট্যাপ করুন।

এবার নেক্সট অন্তিম পর্যায়ে বিল কে কনফার্ম পে করতে একটি popup উইন্ডো ওপেন হবে, যেখানে পে বিল করতে ট্যাপ করে ধরে রাখুন লেখা আছে সেটি ফলো করুন।

আপনার বিল পে এর প্রসেসে সম্পূর্ণ হবে

আরো পড়ুন –

শেষ কথা –

প্রসেসে complete হওয়ার পর আপনি সঙ্গে সঙ্গে মোবাইলে বিদ্যুৎ বিল successful pay হয়েছে তার নোটিফিকেশন পাবেন।আরও ভালোহবে যদি আপনি তার একটি স্ক্রিনশর্ট রেখেদিন।

এছাড়া আপনি বিল Receipt ডাউনলোড করে নিজের মোবাইলে পিডিএফ ফরম্যাটে রেখে দিতে পারেন।কেননা ভবিৎষতে কোনো সমস্যা দেখাদিলে আপনি বিল পেমেন্ট করেছেন এই Receipt তার প্রমান।

যাইহোক ফ্রেন্ডস আশাকরি,বিকাশ থেকে বিদ্যুৎ বিল পে করার প্রসেস টি সম্পূর্ণ বুঝতে পড়েছি।এছাড়া আপনাদের কোনো সমস্যা বা বুঝতে অসুবিধে হলে কমেন্ট করতে ভুলবেন না।

Share via
Copy link