ঘরে বসে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম ?(bkash 2021)

বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম: আজকাল সব কিছুই ডিজিটাল,এরফলে মোবাইল ব্যাঙ্কিং সিস্টেম আমাদের দৈনিন্দ জীবনের অর্থ আদান প্রদান পরিষেবা কে অনেক সহজ করে দিয়েছে।আপনারা হয়তো জানেন বাংলাদেশর সব থেকে জনপ্রিয় এই পরিষেবা প্রদানকারী বিকাশ সম্পর্কে।এর পরিষেবা ব্যবহার করে বাংলাদেশের যেকোনো প্রান্তে যে কাউকে অর্থ আদান প্রদান করতে পারেন।তাই এই পোস্টে আমি ২ মিনিটে কিভাবে বিকাশ পার্সোনাল একাউন্ট খুলবেন সেটি শেয়ার করবো।

বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

2011 সালে হলো বাংলাদেশের মোবাইল ফাইন্যান্স সার্ভিস BRAC Bank Limited এর পক্ষ থেকে বিকাশ  লঞ্চ করা হয়। প্রথম দিকে এর কিছু বেসিক সার্ভিস যথা cash in, cash out এবং send money পরিষেবা দিতো। 

বর্তমানে বিকাশের মধ্যে অনেকগুলি সার্ভিস পাওয়া যায় যেমন মোবাইল রিচার্জ করা,ইলেকট্রিক বিল দেওয়া,ট্রেন বাস ফ্লাইট এর  টিকিট কেটেকাটা,অনলাইনে রিচার্জ,ইন্টারনেট থেকে শপিং ইত্যাদি ইত্যাদি।

এখন যে নতুন বিকাশ অ্যাপ লঞ্চ করেছে সেখানে আপনাকে কোনো এজেন্ট বা কাস্টমার কেয়ারে যেতে হবেনা। এখন আপনি কারো সাহায্য ছাড়া নিজে নিজে বিকাশ একাউন্ট ওপেন করতে পারবেন।

তাহলে চলুন দেরি না করে জানি বিকাশ পার্সোনাল একাউন্ট খোলার নিয়ম। 

 আরো পড়ুন – 

নিজে নিজে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

বিকাশ এ একাউন্ট খোলা খুবই সহজ আপনার একটা এন্ড্রয়েড ফোন ও NID কার্ড থাকলেই হবে। মোবাইলে প্লে স্টোর থেকে এর app ইনস্টল করে ২ মিনিটে একাউন্ট খুলতে পারবেন।

বিকাশ অ্যাপের সাহায্যে নিজের মোবাইল রিচার্জ থেকে আরম্ভ করে ইলেকট্রিক বিল অন্য কোন বন্ধু-বান্ধব ফ্যামিলি মেম্বার কে খুব সহজে কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে টাকা পাঠাতে পারবেন। 

সম্প্রতি BRAC Bank Limited এই app কে নতুন ভাবে মোডিফাই করেছে। এই app এর মধ্যে অনেক জিনিস আপডেট করেছে, আমরা সেগুলি নিচে বিস্তারিত জানবো।

অনলাইনেবিকাশ পার্সোনাল একাউন্ট খুলতে নিচে দেওয়া  প্রত্যেক টি স্টেপ ফলো করুন –

প্রথমত – আপনার এন্ড্রোইড মোবাইল এ play store থেকে Bkash app টি ইনস্টল করুন।অথবা নিচের লিংকে এ  গিয়ে ক্লিক করুন। 

link –bKash App 

বিকাশ app

দ্বিতীয় ধাপ – অ্যাপ ইন্সটল করার পর ওপেন করুন, প্রথমে আপনার কিছু পারমিশন চাইবে যথা ফোন কল,কন্টাক্ট এবং লোকেশনের।এগুলা এলাও করে দিন তারপর অ্যাপটি রেডি হয়ে যাবে। 

Bkash app ওপেন হলেই প্রথমে লগইন/রেজিস্ট্রেশন পেজ দেখতে পাবেন। নুতুন একাউন্ট খুলতে লগইন/রেজিস্ট্রেশন এ টাচ করে ওপেন করুন। 

বিকাশ খোলার নিয়ম

next আপনার মোবাইল নম্বর চাইবে,আপনি পার্মানেন্ট মোবাইল নম্বর টা দিয়েদিন তার পর নিচে অ্যারো বাটনে টাচ করুন(এখানে ভুল নম্বর দিবেন না কারণ সেই নম্বরে একটি কোড যাবে যেটা একাউন্ট ভেরিফাই করতে দরকার পড়বে )

অ্যারো বাটনে টাচ করার পর আপনি যে নম্বর টি  দিয়েছেন সেটা কোন কোম্পানি বা অপারেটর সিলেক্ট করুন।  (যেমন artial,Grameenphone,Banglalink)

বিকাশ খোলার নিয়ম

এবার আপনার মোবাইলে six ডিজিট OTP কোড যাবে সেটা এখানে টাইপ করুন এবং অ্যারো বাটনে টাচ দিয়ে মোবাইল নম্বর ভেরিফাই করুন। 

বিকাশ একাউন্ট open

পরবর্তী স্টেপে বিকাশের শর্তাবলী কে ভালোভাবে পড়েনিন তারপর অ্যারো বাটন এ টাচ দিয়ে একসেপ্ট করুন। 

তৃতীয় ধাপ – নতুন বিকাশ একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করতে আপনাকে 3 টি ছোট্টো স্টেপ ফলো করতে হবে।

  • 1st আপনার এনআইডি ছবি তুলে সাবমিট করতে হবে।
  • 2nd প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করতে হবে এবং
  • 3rd নিজের একটি সেলফি ছবি তুলে সাবমিট করতে হবে।

এই স্টেপ গুলি পূরণ করলে আপনার বিকাশে রেজিস্ট্রেশন সম্পূর্ণ হবে। তাহলে প্রথম স্টেপ শুরু করতে নিচে অ্যারো তে ক্লিক করুন। 

আপনার ফোনের ক্যামেরা ওপেন হবে সেখানে নিজের NID কার্ড ফ্রন্ট এর ছবি তুলে সাবমিট করুন।

বিকাশ একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন

ফ্রন্ট pic সাবমিট হলে next NID কার্ডের ব্যাক এর ছবি সাবমিট করুন একই ভাবে। 

বিকাশ একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন

আপনার NID কার্ডের ছবি সাবমিট হয়ে গেলে অটোমেটিকলি আপনার id কার্ডের ইনফরমেশন গুলো show করবে।

নিচে অ্যারো বাটনে ক্লিক করে আরো কিছু তথ্য চাইবে সেগুলো পূরণ করুন।

  • প্রথমে আপনার লিঙ্গ কি তার অপসন পাবেন আপনি নিজের লিঙ্গ সিলেক্ট করুন। 
  • এবার আপনার আয়ের উৎস জানতে চাইবে। এখানে অনেক অপসন পাবেন,আপনার আয় যে থেকে আসে সেটা সিলেক্ট করুন।(উধারণস্বরূপ -ব্যবসায়িক আয়)
  • নিজের আনুমানিক মাসিক আয় সিলেক্ট করুন।
  • আপনি কি পেশা করেন সেটা সিলেক্ট করুন।

এবার একটু wait করুন, তারপর শেষ ধাপ নিজের ছবি সাবমিট করার অপসন পাবেন। 

নিজের সেলফি ছবি তুলে আপলোড করার আগে তার কিছু নিয়ম লেখা আছে সেগুলি ভালো করে পড়েনিন।যেমন ছবি অন্ধকার তুলবেন না,আপনার ফেস যে গোল ফ্রেম দেখাবে তার মধ্যে তুলবেন। 

আপনার ফেস স্ক্যান হলে কনফারমেশন sms পেতে wait করুন এর রকম ম্যাসেজ দেখতে পাবেন। ম্যাসেজ টি ক্রস দিয়ে কেটে দিন এবং উপরে লগইন এ ক্লিক করুন। 

বিকাশ একাউন্ট লগইন

চতুর্থ ধাপ :- এবার আপনার একাউন্ট  লগইন করতে যে মোবাইল নম্বর টি এই একাউন্টে দিয়েছেন সেটি টাইপ করুন,next অপারেটর সিলেক্ট করুনতারপর আপনার নম্বরে otp যাবে সেটা দিয়েদিন।

এবার next আপনার বিকাশ একাউন্ট  নুতুন পিন সেট করতে হবে। 

বিকাশ একাউন্ট  পিন সেট

৫ ডিজিট এর নম্বর প্রথমে দিয়ে পিন সেট করুন,দ্বিতীয়বার করনফর্ম করতে আরেকবার দিন।(এই পিনটি  যখনি বিকাশ app ওপেন করবেন বা কোনো পেমেন্ট করবেন তখন চাইবে তাই এই এই পিন টি দয়া করে মনে রাখবেন )

next  অ্যারো তে ক্লিক করলে এবার নিজের নম্বর দেখতে পাবেন আর নিচে ওই ৫ ডিজিটের পিন টি দিয়ে লগইন করুন। 

নিজে নিজে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

লগইন হয়ে হলে নিজের হোম স্ক্রিন এ ডিসপ্লে নাম ও প্রোফাইল পিকচার সেট করতে বলবে যেটা আপনি পরেও দিতে পারেন এখানে skip করার অপসন আছে। 

আমি এখানে যে যে স্টেপ গুলো বললাম সেগুলি ঠিক ঠাক ভাবে ফলো করলে আপনার বিকাশ একাউন্ট খোলা সম্পূর্ণ হবে।এবার নিচে এই app এর বেসিক ওভারভিউ বলে দি।

বিকাশ মোবাইল app এর বেসিক ওভারভিউ

বিকাশ app এর মধ্যে লগইন করলে নিচে ছবি আছে ওই রকম ডিসপ্লে ইন্টারফেস দেখতে পাবেন। ছবির মধ্যে ওই আইকন কি সেটা জেনে নিন। 

বিকাশ পার্সোনাল একাউন্ট

balance tab – উপরে b লেখা আছে সেখানে ট্যাপ করলে আপনার একাউন্ট এ কত balance আছে সেটা দেখতে পাবেন।

সেন্ড মানি – এর মাধ্যমে আপনি যেকেউ কে টাকা সেন্ড করতে পারবেন।

মোবাইল রিচার্জ – আপনি যে কোনো মোবাইল নাম্বারে রিচার্জ করতে পারবেন। 

অ্যাড মানি – এখানে আপনি এজেন্ট বা ব্যাঙ্ক এর সাহায্যে বিকাশে মানি অ্যাড করতে পারবেন। এছাড়া এখানে মাস্টার কার্ড বা ভিসা কার্ড থাকলে সেটার সাহায্যে ও টাকা অ্যাড করতে পারেন।

পে বিল – এর সাহায্যে ইউটিলিটি বিল যেমন বিদ্যুৎ, গ্যাস, ইন্টারনেট এবং অন্যান্য পরিষেবাগুলি বিল এই app এর সাহায্যে দিতে পারবেন।  

টিকেট – এই অপশনে মুভি টিকিট পর্চেস থেকে শুরু করে বাস,ট্রেন,ফ্লাইট ,লঞ্চের টিকিট buy করতে পারবেন।

যাইহোক,আমি এই app এর একটা ব্যাসিক ওভারভিউ দিলাম,আর বিস্তারিত জানতে হলে ইউটুবে অনেক ভিডিও আছে সেগুলো দেখতে পারেন।  

আমার শেষ কথা,

ফ্রেন্ডস,আশাকরি আপনারা নিজে নিজে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম টি বুঝতে পেরেছেন। উপরে আর্টিকেলে টি সম্পূর্ণ পড়লে মাত্র ২-৫ মিনিটে এই একাউন্ট খুলে ফেলবেন। 

বিকাশ app এর কিছু কিছু সুবিধা আছে সেগুলি বলি,এখানে ক্যাশ আউট এর ক্ষেত্রে ১.৫% যেটা আগের থেকে অনেক কম। app এর মধ্যে অনেক রকম ক্যাশ ব্যাক পাবেন যেমন প্রথম বার app ইনস্টল করলে বোনাস পাবেন।এছাড়া অনেক রিচার্জে ক্যাশ ব্যাক দেখতে পান।

বিকাশ এর মধ্যে নিজেই পেমেন্ট করতে পারবেন যেকোনো ব্যাঙ্কের সাহায্যে। আরো অনেক সুবিধে আছে যেগুলো  একাউন্ট খুললে জানতে পারবেন।

আশা করি,আপনাদের বিকাশ একাউন্ট খুলতে আর কোনো অসুবিধে হবে না।এই আর্টিকেল টি ভালো লাগলে অবশই কমেন্ট ও শেয়ার করুন। ধনবাদ 

আরো পড়ুন –

কিভাবে বিকাশ একাউন্ট খুলবেন তার ভিডিও দেখুন –

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x
Share via
Copy link