ফেসবুক গ্রুপ খোলার নিয়ম?(How To Create Facebook Group 2021)

ফেসবুক গ্রুপ খোলার নিয়ম:-ফ্রেন্ডস,আপনার যদি কোনো বিসনেস বা সার্ভিস থাকে তাহলে বর্তমানে Facebook Group থাকা খুবি জুরুরি,তাই এই পোস্টে জেনেনিন কিভাবে একটি ফেসবুক গ্রুপ বানাবেন।(Create Facebook Group)

Create Facebook Group
Facebook Group

আমরা আগেই এই সাইটে ফেসবুক পেজ খুলার সম্পর্কে জেনেছি,এবার এখানে ফেইসবুক গ্রুপ ওপেন বিষয় সম্পর্কে বিস্তারিত জানবো।

একটি ফেসবুক গ্রুপ ওপেন করা খুব কঠিন কাজ না,গ্রুপ তৈরী করার জন্য ফেসবুক আইডি থাকা বাধ্যতামূলক।আশা করি আপনাদের সবার আইডি আছে।

ফ্রেন্ডস আপনারা কি জানেন ফেসবুকে বর্তমানে প্রায় ১ কোটির বেশি গ্রুপ রয়েছে এবং তারসঙ্গে কোটি কোটি ইউসার যুক্ত আছেন।

তাই আপনি যদি কোনো বিসনেস বা সার্ভিস provide করেন,তাহলে ফেসবুক গ্রুপ সেই বিসনেস কে প্রোমোট করার জন্য উপযুক্ত প্লাটফর্ম।

এছাড়া ইউসার দের সঙ্গে কানেক্ট হওয়ার ক্ষেত্রে যথা তাদের সমস্যা,প্রশ্ন গুলির উত্তর ও সমাধান দেওয়ার ব্যাপারে গ্রুপ একটি ভালো প্লাটফর্ম।

ফেসবুক গ্রুপ কি ?ফেসবুক গ্রুপ এর কাজ কি ?(what is facebook group)

facebook page ও facebook group একটি আইডি এর সঙ্গে সংযুক্ত থাকে,তাই সেই group এর অ্যাডমিন সাধারণত কোনো ফেসবুক আইডি থেকে group টি নিয়ন্ত্রণ করে।

ফেইবুক গ্রুপ তাদের দরকার পরে যাদের কোনো organization বা business আছে তাদের বিভিন্ন কাজকর্ম ও ইউসার দেড় ও সঙ্গে কানেক্ট এই প্লাটফর্ম দ্বারা হতে পারবে।

এখানে যেসব ইউসারগণ আপনার বিসনেস এর সঙ্গে যুক্ত বা interact রাখে তারা এই group এ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে  discussion করতে পারে।

বহু বছর ধরে ফেসবুক গ্রুপ পৃথিবীর ছোট বড় বিসনেস গুলির সঙ্গে গ্রাহক ও ইউসারদের সঙ্গে কানেক্ট হতে সাহায্য করেছে।

সাধারণত বিসনেস প্রোমট করতে facebook page ও group দুয়ের ভূমিকা আলাদা,তবে ফেইসবুক পেজ ডাইরেক্ট অডিয়েন্সকে টার্গেট করে,এখানে যেকেউ join হতে পারে।

কিন্তু facebook group সীমিত মেম্বার দ্বারা তৈরী হয়। এটি একরকম পার্সোনাল প্ল্যাটফর্ম। এখানে ম্যাসেজ শুধু মেম্বারগণ দেখতে পাই ও কে join হবে সেটা অ্যাডমিন উপর নির্ভর করে।

তাই,সীমিত অডিয়েন্সকে নিজের সঙ্গে কানেক্ট করতে facebook group সব থেকে ভালো অপসন। এখানে আপনি যাকে এলাও করবেন সেই শুধু আপনার গ্রূপে মেম্বার হবে।

এছাড়া group এরমধ্যেযে কথাবার্তা,আলোচনা হবে,যে ম্যাসেজ মেম্বারদের দিবেন সেগুলি শুধু group এ থাকা ইউসারগণ দেখতে পাবে।

ফেসবুক নিয়ে আরও অন্যান্য পোস্ট –

জানুন ফেসবুক গ্রুপ খোলার নিয়ম সম্পর্কে (How to Create Facebook Group)

ফ্রেন্ডস,আমি আগেই বললাম ফেসবুক গ্রুপ তৈরী করতে হলে ফেসবুকে একটা অ্যাকাউন্ট থাকা বাধ্যতামূলক,আশাকরি সেটা নিশ্চয়ই সবার আছে।

আর যদি, Facebook account না থাকে তাহলে এখানে একটি অ্যাকাউন্ট বানিয়ে নিন।

আমরা এই পোস্টে বিস্তারিত জেনে নেবো কিববে আপনি গ্রপ তৈরী করতে পারবেন।

প্রথমে মোবাইল app থেকে কিভাবে খুলবেন সেটি দেখেনেবো।পরে ব্রাউসার ওয়েবসাইট এ ফেসবুক গ্রুপ খোলার নিয়ম টি দেখাবো।

তাহলে শুরু করা যাক:-

1st স্টেপ- Open Facebook app

ফেসবুক app এর নুতুন ইন্টারফেস হয়েছে,এখানে গ্রুপ ওপেন করা খুব সহজ।নিজের মোবাইল থেকে ফেসবুক app ওপেন করেনিন।

হোমপেজে ওপেন হলে মেনু অপশনে যান -ডানদিকে ৩টি লাইনে ট্যাপ করুন।

2nd স্টেপ :- Open Groups

Next মেনুর মধ্যে অনেক অপসন পাবেন,সেখানে “Groups” লেখা আছে ওখানে ট্যাপ করুন।

দ্বিতীয় পেজে ওপেন হবে সেখানে নুতুন Group তৈরী করতে “Create”লেখা আছে ওখানে ক্লিক করুন।

3rd স্টেপ:- Create A Group

Group তৈরী করতে কয়েকটি স্টেপ পার করতে হবে,প্রথম স্টেপে গ্রুপের নাম,প্রাইভেসী কিরকম রাখবেন সেগুলি পূরণ করুন।

  • Name- এই স্থানে Group এর যে নাম রাখবেন সেটা দিন। (যেমন আমি techjaman দিয়েছি )
  • Privacy – এই অপশনে গ্রুপ আপনি পাবলিক বা প্রাইভেট রাখতে চান সেটা চুষ করুন।(পাবলিক করলে যেকেউ গ্রুপে কে কে মেম্বার আছেন ও তাদের পোস্ট দেখতে পাবে।প্রাইভেট করলে কে কে গ্রুপ এর মেম্বার ও তাদের করা পোস্ট শুধু মেম্বারগণ দেখতে পাবেন।)
  • visible :- এই স্থানে নিজের গ্রুপকে ফেসবুক এরমধ্যে লুকোতে পারবেন। সার্চে শো করবে না। (visible এ টিক দিলে যেকেউ এই গ্রূপটি ফেসবুকে খুঁজে পাবে।Hiddenকরলে শুধু মেম্বাররা গ্রুপটি ফেসবুকে খুঁজে পাবেন)

এবার আপনারা নিজের মত গ্রুপের প্রাইভেসি ঠিক করেনিন। এরপর “Create Group” এ ট্যাপ করুন।

4th স্টেপ :- Invite friends

Next ধাপে আপনি ফ্রেন্ডসদের ইনভাইট করার অপসন পাবেন।আপনি যে যে বন্ধুদের গ্ৰুপে মেম্বার বানাতে ইচ্ছুক তাদের ইনভাইট সেন্ড করুন। তারপর উপরে “Next” অপশনে ক্লিক করে পরবর্তী ধাপে চলে যান।

5th স্টেপ :- Cover Photo Upload

নেক্সট অপসন Group একটি কভার ফটো আপলোড করুন। ছবি আপলোড করতে “Upload Cover Photo” লেখা আছে ওখানে ট্যাপ করুন।

তারপর গ্যালারি থেকে ছবি সিলেক্ট করতে আপলোড করেদিন।

ছবি আপলোড এর পর নেক্সট করুন।

স্টেপ 6:-Add Description

Description এর ফাঁকা স্থানে নিজের গ্রুপ সম্পর্কে বর্ণনা দিন। এরফলে ফেসবুকে যখন কেউ এই ধরণের গ্রুপ ফাইন্ড করবে সেখানে এই গ্রুপ সার্চ রেজাল্ট আসবে।(ছবিতে যেভাবে আমি লিখেছি )

স্টেপ 7: Create Post

ফ্রেন্ডস,এবার দেখুন আপনার গ্ৰুপ মোটামোটি তৈরী হয়েগেছে। এবার আপনি একটি পোস্ট লিখে পাবলিক এর মধ্যে শেয়ার করতে পারবেন।

আপনি একটি নতুন পোষ্ট লিখে গ্রুপের নতুন মেম্বার দের ওয়েলকাম করতে পারেন।

যদি পোস্ট না করতে চাইলে skip করে দিন। উপরে দেখুন continue later লেখা আছে।

দেখুন আপনি গ্রুপের হোমপেজে চলে আসবেন।

Group Home page

friends আপনার নুতুন গ্ৰুপ তৈরী সম্পূর্ণ হয়েছে। এখন আপনি নুতুন মেম্বারদের অ্যাড করতে পারেন,পোস্ট তৈরী করুন,লাইভ এ যেতে পারেন,ছবি বা ভিডিও পোস্ট করতে পারবেন।

গ্ৰুপ এর পেজটি ফেসবুক আইডি থেকে আলাদা এখানে আপনার হাতে সমস্ত কন্ট্রোল থাকে।এছাড়া গ্ৰুপে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্টাটিং আছে যেগুলো আপনার জেনে রাখা দরকার।

ওই সেটিং গুলোর সম্পর্কে আমার নিচে ফেইসবুক ওয়েবসাইট থেকে Group ওপেন করার সময় দেখে নেবো।

ফেসবুক নিয়ে আরও অন্যান্য পোস্ট –

ওয়েবসাইটে যেভাবে ফেসবুক Group খুলবেন 

উপরে আমরা মোবাইল app এরমধ্যে কিভাবে ফেসবুক গ্রুপ তৈরী করবেন সেটা জানলাম।এবার কম্পিউটারে ওয়েবসাইট ভিসিট করে কিভাবে ফেসবুক Group তৈরি করতে হয় সেটা এখানে দেখবো।

প্রথমে নিজের আইডি থেকে ফেসবুক ওয়েবসাইটে লগইন করুন।

প্রথম ধাপ (go to menu)

ফেসবুক তার নিউ ইন্টারফেস চেঞ্জ করেছে,যেখানে গ্রুপ তৈরী করা খুব সহজ। ফেসবুকের উসেরনামের পাশে ডট ডট মেনু অপশন পাবেন ওখানে ক্লিক করুন।

দ্বিতীয় ধাপঃ মেনুর মধ্যে অনেকগুলো অনেক গুলো অপশন পাবেন তার মধ্যে “Groups” অপশনটি ক্লিক করুন।

গ্রুপ সেকশনে প্রবেশ করার পর বাঁদিকে “Create New Group” লেখা দেখতে পাবেন। নতুন গ্রুপ তৈরি করতে ওখানে ক্লিক করুন।

তৃতীয় ধাপঃ এবার একটি নতুন পেয়েছে ওপেন হবে সেখানে গ্রুপ তৈরী করার অপসন পাবেন। এখানে গ্রুপের নাম,প্রাইভেসি,কে কে এই গ্রুপ দেখতে পাবে সেই অপশন গুলি বেছে নিন।

  • Group Name- এই ফাকা স্থানে Group এর যে নাম রাখবেন সেটা দিন।(যেমন আমি techjaman দিয়েছি )
  • Privacy – এই স্থানে গ্রুপ আপনি পাবলিক বা প্রাইভেট রাখতে চান সেটা চুষ করুন।(পাবলিক করলে যেকেউ গ্রুপে কে কে মেম্বার আছেন ও তাদের পোস্ট দেখতে পাবে।প্রাইভেট করলে কে কে গ্রুপ এর মেম্বার ও তাদের করা পোস্ট শুধু মেম্বারগণ দেখতে পাবেন।)
  • visible :- এখানে আপনি গ্রুপকে ফেসবুক লুকোতে পারবেন।(visible এ টিক দিলে যেকেউ এই গ্রূপটি ফেসবুকে খুঁজে পাবে।Hiddenকরলে শুধু মেম্বাররা গ্রুপটি ফেসবুকে খুঁজে পাবেন)

সব কিছু লেখার পর নিচে Create অপশন পাবেন ওখানে ক্লিক করুন।মোটামুটি আপনার গ্রুপ তৈরি হয়ে যাবে।

চতুর্থ ধাপঃ গ্রুপ তৈরি হওয়ার পর Group হোমপেজে ঠিক এরকম দেখতে হবে।এখানে ফেসবুক থেকে অটোমেটিকলি একটি কভার পেজ আপলোড হয়েগেছে।

আপনি এডিট করে কভার ফটো আপলোড করতে পারেন। কভার ফটো আপডেট করার জন্য এডিট অপশনে ক্লিক করুন এখানে আপনি ছবি আপলোড করার ও অন্যান্য অপশন পাবেন।

পঞ্চম ধাপঃ বন্ধুগণ এখন আপনারা মোটামুটি গ্রুপ কিভাবে তৈরি হয় সেটি জেনে ফেলেছেন।এখন আমরা যেটি জানবো সেটি হচ্ছে ফেসবুক গ্রুপের গুরুত্বপূর্ণ সেটিংগুলির সম্পর্কে।

দেখুন গ্রুপের মধ্যে অনেক গুরুত্বপূর্ণ সেটিং রয়েছে যেগুলো এডমিন এর পক্ষে জানা খুবই জরুরী বিষয়।

তাই গ্রুপ ওপেন করার পর এডমিনের এই সেটিংগুলি সম্পর্কে জেনে নেওয়া একান্ত দরকার।

এখানে কিছু সেটিং আছে যেমন কিভাবে ফেসবুক পেজকে কানেক্ট করতে হয়,কিভাবে নিজের ওয়েবসাইটের অ্যাড করবেন, ইউসার এপ্প্রুভল,

গ্রুপে জয়েন করলে তার জন্য কিছু ক্যাটাগরি আছেসেগুলি,যেমন কেউ মেম্বার হতে চাইলে এডমিনের দেওয়া কিছু কোশ্চেনের অ্যানসার করতে হয় তারপর অ্যাডমিন তাকে মেম্বার রূপে গ্রহণ করে।

তাই এবার আমরা এই কাজ গুলো কিভাবে আপনি করবেন সেগুলো দেখেনেব।

কভার ফটো অ্যাড করার পর,দেখুন গ্রুপের বাম সাইডে “Manage group” নামে একটা সেকশন থাকবে ওখানে নিচে স্ক্রল করুন নিচে সেটিংস অপশন পাবেন ওখানে ক্লিক করুন।

settings অপশনে অনেক কয়েকটি “sub settings ” পাবেন এগুলি ফেসবুক গ্রুপের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। তাই এই শূন্যস্থান গুলি পূরণ করেনিন।

  • Name and description- ফার্স্ট অপশন নিজের গ্রুপের নাম ও গ্রুপ সম্পর্কে ছোট্ট একটি বর্ণনা আগেই জেনে নিয়েছি ,আপনারা যদি এরমধ্যে আরও এডিট করতে চান তাহলে করে নিন।
  • Privacy: একইভাবে প্রাইভেসি অপশনে আগে সিলেট করা আছে এখানে নতুন করে আর কিছু করার নেই।
  • Hide group: নিজের গ্রুপ পাবলিকের কাছে লুকিয়ে রাখতে গেলে hidden করুন।
  • Location: গ্রুপের লোকেশন কোথায় রাখবেন সেটা সিলেক্ট করুন।
  • Web address: নিজের কোন ওয়েবসাইট থাকলে তার লিংক এখানে সাবমিট করুন।
  • Badges:- গ্রুপে কোন মেম্বারদের জন্য কি ধরনের Badge দিবেন সেগুলি বেছে নিন।
  • Group type: আপনার গ্রুপটি কোন ক্যাটাগরির মধ্যে পড়ে সেটি সিলেক্ট করে নিন।

Manage membership

ফ্রেন্ডস,এবার কয়েকটি স্টেপ স্কিপ করে নিচের ম্যানেজ মেম্বারশিপ সেকশনে চলেযান।

  • Who can join the group :- এখানে গ্রুপে কাদের এলাও করবেন,শুধু যাদের আইডি আছে তাদের না শুধু যাদের পেজ আছে তাদের,বা দুজন কে এড করতে চান সেটি সিলেক্ট করুন।
  • Who can approve member requests :- গ্রুপের নতুন মেম্বারদের এড করার ক্ষমতা গ্রুপে থাকা মেম্বারদের দিবেন না শুধু এডমিনের কাছে থাকবে সেটি সিলেক্ট করুন।
  • Who is pre-approved to join :- অগ্রিম কোন গ্রুপের মেম্বারদের এড করার পারমিশন দিতে চাইলে এখানে সেই গ্রুপ এড করুন। আর না চাইলে Nobody করে দিন।

Manage discussion

  • Who can post:- এখানে গ্রুপে মেম্বারদের সিলেক্ট করুন।
  • Approve all member posts:- আপনি চাইলে মেম্বারদের পোস্ট কন্ট্রোল করতে পারেন।“Approve all member posts” করলে,গ্রুপে যেকোনো মেম্বার বিনা বাধায় পোস্ট করতে পারবে। অ্যাডমিন অ্যাপ্রুভ হলে গ্রুপের কোন মেম্বারের পোস্টে করলে সেটা এডমিনের রিভিউ করার পর অ্যাপ্রুভ হবে।
  • Approve edits:- মেম্বাররা তাদের পোস্ট এডিট করতে পারবে না ভায়া এডমিন দ্বারা এডিট করতে হবে সেটি সিলেক্ট করুন।

বন্ধুগন এখানে কিছু জেনারেল সেটিং ছিল তার সম্পর্কে আপনাদের অবগত করে দিলাম। এরপর যখন আপনার গ্রুপে মেম্বারের সংখ্যা অনেক গুলি হয়ে যাবে তখন আপনি কিছু এডভান্স সেটিংস আছে সেগুলি এপ্লাই করতে পারেন।

তার মধ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ সেটিং জেনে নিন মেম্বারশিপ কোশ্চেন সম্পর্কে।

Membership questions:- মেম্বারশিপ কোশ্চেন হচ্ছে গ্রুপে জয়েন হওয়ার সময় এডমিন দ্বারা দেওয়া কিছু নির্দিষ্ট কোশ্চেনের অ্যানসার দিতে হয়।

তারপর এডমিন সেই অ্যানসার অনুযায়ী সেই ইউজারকে অ্যাড করে। আপনারা গ্রুপের মধ্যে এই অপশনটি চালু করতে ম্যানেজ সেকশন থেকে “Membership questions” ওপেন করুন।

মেম্বারশিপ কোশ্চেন সেকশনের মধ্যে আপনি নিজের পছন্দ অনুযায়ী কয়েকটি কোশ্চেন এড করতে পারেন।

এখানে আপনি বিভিন্ন অপশন দিতে পারেন ইউজারদের।ইউজাররা কোশ্চেন অ্যানসার করার পর তারা pending চলে যাবে।

এডমিন অ্যাপ্রুভ করলে সেই ইউজাররা গ্রুপে জয়েন হতে পারবেন।

Automatic member approvals :- সেটিংস মধ্যে আরেকটি অপশন পান,অটোমেটিক মেম্বার অ্যাপ্রভাল। যেখানে এডমিন কিছু requirements সেট করেরাখে আগে থেকে,যেগুলি মিলেগেলে ইউজাররা অটোমেটিকলি এড হয়ে যাবে।

pending posts :- এই সেকশনে মেম্বারদের পোস্ট এডমিন দ্বারা অ্যাপ্রুভ হয়।তাদের পেন্ডিং পোস্টগুলি এখানে দেখতে পারবেন।

এছাড়া গ্রুপে আরো কতগুলি ফিচারস রয়েছে যেগুলো আপনার কাজে আসতে পারে,যেমন scheduled posts ভবিষ্যতের জন্য পোস্ট schedul করতে পারেন।

গ্রুপের মধ্যে কি কি অ্যাক্টিভিটি হচ্ছে সেগুলি Activity log দ্বারা দেখতে পারেন।

নিজের গ্রুপের মধ্যে কিছু  rules set up করতে পারেন। যেগুলি প্রত্যেক মেম্বার কে মেনে চলতে হবে।

গ্রুপ অনেক বড় হয়েগেলে অথবা এডমিন গ্রুপে টাইম না দিতে পারলে গ্রুপে এক বা একাধিক moderator অ্যাড করতে পারবেন।

সেটিংস এর মধ্যে আরো অনেক গুলো অপশন আছে যেগুলি আপনি সেটাপ করতে পারেন।এগুলি আস্তে আস্তে গ্রুপ সম্পর্কে ভালো ধারণা এলে অটোমেটিকলি বুঝে নিবেন।

আরও পড়ুন :-

আমাদের শেষ কথা:

বন্ধুগন আমরা উপরে ফেসবুক গ্রুপ কিভাবে মোবাইল অ্যাপ ও ওয়েবসাইট থেকে খুলতে পারবেন সেটা ভিন্ন ভিন্ন ভাবে জেনে নিলাম।

আপনারা নিজেদের পছন্দ অনুসারে যে কোন একটি প্রসেসটি ফলো করুন।

আপনাদের যে ধরনের বিজনেস বা সার্ভিস থাকুক না কেন,ফেসবুক গ্রুপ থেকে একটা ভালো বিজনেস এর বুষ্ট পাবেন।

এখানে ইউজাররা আপনার বিজনেস সম্পর্কে আরও নানান বিষয় নিয়ে আলোচনা করতে পারবে। আপনি ইউজারদের সঙ্গে খুব সুন্দর কানেক্ট হতে পারবেন।

এছাড়া ইউজারদের করা বিভিন্ন সমস্যা বা কোশ্চেন গুলি এডমিন রূপে খুব সহজেই অ্যানসার করতে পারেন।

এছাড়া ও গ্রুপের মেম্বাররা সেসকল ইউজারদের সমস্যা সমাধান করে সাহায্য করতে পারে। ইউজাররা যখন গ্রুপ থেকে ভালো ফিডব্যাক পাবে সেই বিজনেস সম্পর্কে নানান তথ্য জানতে পারবে।

এর ফলে আপনার বিজনেস সম্পর্কে ইউজারদের মনে একটা পজিটিভ চিন্তাভাবনা ও বিশ্বাস জন্মাবে।

মেম্বারা কিছু সমস্যায় পড়লে তাদের সমস্যার কথা এই গ্রুপে আলোচনা করবে এবং এবং তারা সমস্যা-সমাধান পেলেই সেটি একটা পজিটিভ ফিডব্যাক রূপে গ্রহণ হবে।

তাই চটজলদি আপনার গ্রুপ না থাকলে এই প্রসেসে ফলো করে একটি বানিয়ে ফেলুন।

আশাকরি বন্ধুগণ আপনারা ফেসবুক গ্রুপ খোলার নিয়ম টি এ আর্টিকেলে বুঝতে পেরেছেন। কোন কিছু জিজ্ঞাসা করতে চাইলে কমেন্ট করতে ভুলবেন না। ধন্যবাদ

error: Content is protected !!
Share via
Copy link